যদি বলো রঙিন- আজকের কবিতা ছবি

0
228

মনে পড়ে সেই সুপুরি গাছের সারি
তার পাশে মৃদু জ্যোতস্না মাখানো গ্রাম
মাটির দেয়ালে গাঁথা আমাদের বাড়ি
ছোট ছোট সুখে স্নিগ্ধ মনস্কাম ।

পড়শি নদীটি ধনুকের মতো বাঁকা
উরু ডোবা জলে সারাদিন খুনশুটি
বাঁশের সাঁকোটি শিশু শিল্পীর আঁকা
হেলানো বটের ডালে দোল খায় ছুটি ।

এপারে ওপারে ঢিল ছুঁড়ে ডাকাডাকি
ওদিকের গ্রামে রোদ্দুর কিছু বেশি
ছায়া ঠোঁটে নিয়ে উড়ে যায় ক’টি পাখি
ভরা নৌকায় গান গায় ভিনদেশি ।

আমার বন্ধু আজানের সুরে জাগে
আমার দু’চোখ তখনো স্বপ্নলতা
ভোরের কুসুম ওপারে ফুটেছে আগে
এপারে শিশির পতনের নীরবতা ।

আমার বন্ধু বহু ঝগড়ার সাথী
কথায় কথায় এই ভাব এই আড়ি
মা’র কাছে গিয়ে পাশাপাশি হাত পাতি
গাব গাছে উঠে সে-হাতেই কাড়াকাড়ি ।

আমার বন্ধু দুনিয়াদারির রাজা
মিথ্যে কথায় জগত্‍ সভায় সেরা
দোষ না করেও পিঠ পেতে নেয় সাজা
আমি দেখি তার সহাস্য মুখে ফেরা ।

আমাদের ছুটি মন বদলের খেলা
আমাদের ছুটি অরণ্যে খোঁজাখুঁজি
আমাদের ছুটি হাসি-কান্নার বেলা
আমাদের ছুটি ঈঙ্গিতে বোঝাবুঝি ।

বন্ধু হারালে দুনিয়াটা খাঁ খাঁ করে
ভেঙে যায় গ্রাম ,নদীও শুকনো ধু ধু
খেলার বয়েস পেরোলেও একা ঘরে
বারবার দেখি বন্ধুরই মুখ শুধু ।

সাঁকোটির কথা মনে আছে ,আনোয়ার ?
এত কিছু গেল ,সাঁকোটি এখনো আছে
এপার ওপার স্মৃতিময় একাকার
সাঁকোটা দুলছে ,এই আমি তোর কাছে ।।

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়

 

শম্ভু প্রসাদ রেড্ডি (সৌজন্য: মোজার্টো)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here